শনিবার , ১৯ জানুয়ারি ২০১৯
Home » খেলাধুলা » আক্ষেপ নিয়ে এশিয়াডে যাচ্ছেন দুই সাঁতারু
128430_s2

আক্ষেপ নিয়ে এশিয়াডে যাচ্ছেন দুই সাঁতারু

আগামী ১৮ই আগস্ট থেকে ২রা সেপ্টেম্বর ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা ও পালেমবাংয়ে অনুষ্ঠিত হবে এশিয়ান গেমসের ১৮তম আসর। এই আসরে ১৪ ডিসিপ্লিনে অংশ নেবে বাংলাদেশ। ১৪ ডিসিপ্লিনের প্রস্তুতি নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনে আজ থাকছে সাঁতার।

পারফরমেন্সের দোহাই দিয়ে গত এশিয়াডে সাঁতারে দল পাঠায়নি বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন (বিওএ)। একই অভিযোগে বঞ্চিত করা হয়েছিলো গেমসের মাদার ইভেন্ট খ্যাত অ্যাথলেটিক্সকেও। সাঁতার, অ্যাথলেটিক্সকে বাদ দিয়ে ইনচন এশিয়াডে সুযোগ পাওয়া ডিসিপ্লিনগুলো হতাশ করে, খুব বাজেভাবে।
এ কারণেই এবার এশিয়াডে সুযোগ মেলে সাঁতার ও অ্যাথলেটিক্সের। জার্কাতা এশিয়ান গেমসে দু’টি ডিসিপ্লিনে দুইজন করে অ্যাথলেট পাঠাচ্ছে ফেডারেশন। তবে সাঁতারে এসএ গেমসে দু’টি স্বর্ণজয়ী সাঁতারু মাহফুজা খাতুন শিলাকে না পাঠিয়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছে ফেডারেশন। এশিয়াডে অংশ নেয়া দুই সাঁতারুর লক্ষ্য এখানে সেরা টাইমিং করে এসএ গেমসের জন্য নিজেদের তৈরি করা।
সাঁতারের কথা এলে সবার আগে আসে মোশাররফ হোসেনের নাম। সাফ গেমসে একাই পাঁচটি ইভেন্টে সোনা জিতে রেকর্ড বুকে নিজের নাম লিখে রেখেছেন এই সাঁতারু। তার এই সাফল্য দেখে ভারতীয়রা বলতে বাধ্য হয়েছিলেন সেদিন আর বেশি দূরে নয়, অলিম্পিক ও এশিয়ান গেমসে বাংলাদেশ পদক জিতবে। এই কিংবদন্তি সাঁতারুকে ঘিরে সাঁতারে বাংলাদেশ বড় সাফল্যের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিল। তার বিদায়ের পরই সাঁতারে করুণ অবস্থার সৃষ্টি হয়। তৈরি হয়নি আরেক মোশাররফ। সাঁতার ফেডারেশনের কর্মকর্তাদের লেজুড়বৃত্তি আর অদক্ষতায় অবস্থা এতটা নাজুক হয়ে পড়েছিল যে সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসে পদক জেতাটা স্বপ্নে পরিণত হয়। ২০১৬ এর আসরে সেই বন্ধ দুয়ার খোলেন মাহফুজা খাতুন শিলা। ফেডারেশনের সঙ্গে লড়াই করে ভারতে অনুষ্ঠিত এসএ গেমসে একাই দুই ইভেন্টে সোনা জিতে চমক দেখান বাংলাদেশ নৌ, বিমানবাহিনীর এই সাঁতারু। মাহফিজুর রহমান সাগর জিতেছিলেন ছয়টি ব্রোঞ্জ। অন্য কোনো প্রতিযোগিতায় নেই কোনো সাফল্য। এই শিলাকে রাখা হয়নি এবারের এশিয়াডের দলে। পারফরমেন্সর কারণেই তাকে বাদ দেয়া হয়েছে বলে জানান ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক এমবি সাইফ। তার জায়গায় নেয়া হয়েছে তরুণ সাঁতারু খাদিজা আক্তারকে। ট্যালেন্ট হান্ট থেকে উঠে আসা এই সাঁতারুর এটাই প্রথম আন্তর্জাতিক কোনো প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ। শিলার মতো অভিজ্ঞ সাঁতারুকে বাদ দেয়ার পেছনে ফেডারেশনের কোনো হাত ছিল না বলে দাবি করেন সাইফ। ‘সিলেকশন কমিটি ট্রায়ালে টাইমিং দেখেই ২ জনকে বাছাই করেছে। এসএ গেমসে সোনা জিতলেও টাইমিং ইমপ্রুভ না করায় শিলাকে নেয়া সম্ভব হচ্ছে না’- বলেন তিনি। শিলাকে বাদ দিয়ে এশিয়াডের দলে নেয়া হয়েছে মাহফিজুর রহমান সাগর ও খাদিজা আক্তারকে। এদের মধ্যে মাহফিজুর রহমান সাগর ৫০, ১০০ ও ২০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে অংশ নেবেন। নারী বিভাগে বিকেএসপি’র সাঁতারু খাদিজার ৫০ ও ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোক ও ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইলে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। এদের প্রস্তুতি ও প্রত্যাশা নিয়ে সাইফ বলেন, দুই সাঁতারু দীর্ঘ সময়ে প্রশিক্ষণে আছেন। সাগর থাইল্যান্ড থেকে উচ্চতর ট্রেনিংও নিয়ে এসেছেন। এরপরও পদক জেতার সম্ভাবনা নেই বলে জানালেন তিনি। তার কথায় এশিয়ান গেমসে পদক জিতব সেই মিথ্যা আশ্বাস দিতে পারি না। তবে এতটুকু বলবো ওরা টাইমিংয়ে উন্নতি করবে। তিনি বলেন, লক্ষ্য আমাদের সামনে এসএ গেমস। এশিয়ান গেমসে নিজেদের পরীক্ষা করে দুই সাঁতারু নিজেদের মেলে ধরবে আশা রাখি। অর্থাৎ এশিয়ান গেমসেই হবে দুই সাঁতারুর ওয়ার্ম আপ। সাইফ বলেন, যেখানে চীন, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার বিখ্যাত সাঁতারু অংশ নেবেন, সেখানে আমরা পারি কিভাবে? এর জন্য দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা দরকার। তা কি আমাদের পক্ষে সম্ভব। এসব আসরের আগে অপর্যাপ্ত অনুশীলনের আক্ষেপের কথাই শোনালেন সাঁতারু মাহফিজুর রহমান সাগর। পদক জিততে না পারলেও টাইমিংয়ে উন্নতির আশ্বাস দিলেন বাংলাদেশ নৌ-বাহিনীর এই সাঁতারু। রিও অলিম্পিকে ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইলে ২৩.৯২ সেকেন্ড সময় নিয়ে সাঁতার শেষ করেছিলেন সাগর। লক্ষ্য এবার রিও অলিম্পিকের টাইমিংকে ছাড়িয়ে যাওয়া। মাত্র এক মাসের অনুশীলন নিয়ে আক্ষেপ আছে নারী সাঁতারু খাদিজা আক্তারের। ‘সিনিয়রদের মধ্য থেকে আমাকে চূড়ান্ত করায় আমি ভীশন খুশি। তবে ট্রেনিংয়ের সময়টা যদি বেশি পেতাম তবে ভালো হতো। এরপরও আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে ভালো করার’- বলেন এই তরুণ জলকন্যা।

এক নজরে মাহফিজুর রহমান সাগর
জন্ম: ১৫ই মে, ১৯৯৩
জন্মস্থান: পাবনা, সংস্থা: বাংলাদেশ নৌবাহিনী
ইভেন্ট: ৫০, ১০০ ও ২০০ মিটার ফ্রি-স্টাইল
প্রিয় ইভেন্ট: ৫০ মিটার ফ্রি-স্টাইল
ঘরোয়া সাফল্য: ৭৮ পদক (৫৫ সোনা, ১৩ রুপা, ১০ ব্রোঞ্জ)
আন্তর্জাতিক সাফল্য : ১৯ পদক (৬ সোনা, ৫ রুপা, ৮ ব্রোঞ্জ)
৫০ মিটার ফ্রি-স্টাইলে সেরা টাইমিং: ২৩.৯২ সেকেন্ড

এক নজরে খাদিজা আক্তার
জন্মাস্থান: কুষ্টিয়া, সংস্থা: বিকেএসপি
ঘরোয়া ইভেন্ট: জুনিয়রে তিনটি ও যুব গেমসে দু’টি স্বর্ণপদক
ইভেন্ট: ৫০ ও ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোক ও ৫০ মিটার ফ্রি-স্টাইল : সাফল্য: ট্যালেন্ট হ্যান্টে তৃতীয়

আরও দেখুন

8c6f8c939de92636474d63185c05b727-57ee7f5746e45

যুক্তরাজ্যকে সময় দিতে নারাজ ইউরোপীয় দেশগুলো

বাংলা সংলাপ ডেস্কঃব্রিটিশ পার্লামেন্ট দেশটির প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র ব্রেক্সিট পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করায় হতাশ অনেক ইউরোপীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *