বুধবার , ১৮ জুলাই ২০১৮
Home » খেলাধুলা » কোপার সেমিতে আর্জেনটিনা : মেসির অনন্য রেকর্ড
3347922

কোপার সেমিতে আর্জেনটিনা : মেসির অনন্য রেকর্ড

বাংলা সংলাপ ডেস্ক:

শতবর্ষী কোপার কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচে আজ শুরু থেকেই মাঠে নামেন আর্জেনটাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি। আর মাঠে নেমেই জাতীয় দলের হয়ে অনন্য এক রেকর্ড গড়েন ফুটবল জাদুকর। আর তার অসাধারণ নৈপুণ্যে ভেনেজুয়েলাকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে কোপা আমেরিকার সেমি-ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ১৪ বারের চ্যাম্পিয়নরা। বুধবার শেষ চারে তাদের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক আমেরিকা।

দীর্ঘদিন ধরে আর্জেন্টিনার সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ডটি নিজের দখলে রেখেছিলেন বাতিস্তুতা। এবার সে রেকর্ডে ভাগ বসালেন আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকর মেসি। কোপা আমেরিকার চলতি আসরে চার গোল করে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতার সঙ্গে সঙ্গে আর্জেন্টিনার সর্বোচ্চ গোলদাতাও এখন মেসি।

ফক্সবরোর জিলেট স্টেডিয়ামে রোববার ম্যাচের শুরুতেই মেসি জাদু দেখে দর্শকরা। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই বল নিয়ে আড়াআড়ি দৌড়ে কয়েকজন খেলোয়াড়কে ফাঁকি দিয়ে ক্রস করেছিলেন; তবে তা সহজেই বিপদমুক্ত করেন গোলরক্ষক এর্নান্দেস। পরের মিনিটে আর্জেন্টিনা অধিনায়কের বাঁকানো শট যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে।

তবে গোল পেয়ে খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি আর্জেন্টিনাকে। ম্যাচের অষ্টম মিনিটেই মেসির বাড়ানো বলে গোল করে দলকে লিড এনে দেন হিগুয়েন। ম্যাচের ২৮ মিনিটে ডিফেন্ডারদের ভুল বোঝাবুঝিতে দ্বিতীয় গোলটি খেতে হয় ভেনেজুয়েলার। ভিগেরার লম্বা ব্যাকপাস ধরে এগিয়ে আসা গোলরক্ষককে কাটিয়ে ফাঁকা জাঁলে নিজের দ্বিতীয় গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন হিগুয়েন।

দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে দমে যায়নি ভেনেজুয়েলা। ম্যাচের ৩৫ মিনিটে ডি-বক্সের ঠিক বাইরে থেকে রনদোনের জোরালো শট নিচু হয়ে ঝাঁপিয়ে ঠেকান রোমেরো। এর চার মিনিট পর কর্নার থেকে লাফিয়ে উঠে রনদোনের জোরালো হেডে অবশ্য পরাস্ত হয়েছিলেন রোমেরো; তবে বল লাগে বাঁ পোস্টে।

ম্যাচের ৪৩ মিনিটে রোমেরো বল বিপদমুক্ত করতে গিয়ে মার্তিনেসের পায়ে ঝাঁপ দিয়ে তাকে ফেলে দিলে পেনাল্টির নির্দেশ দেন রেফারি। কিন্ত পানেলকা শট নিতে গিয়ে গড়বড় করে ফেলেন লুইস মানুয়েল সেইহাস। এই মিডফিল্ডারের চিপ জায়গায় দাঁড়িয়ে কোলে টেনে নিতে কোনো সমস্যাই হয়নি রোমেরোর। ফলে ২-০ গোলে পিছিয়ে থেকেই বিরতিতে যেতে হয় ভেনেজুয়েলাকে।

বিরতি থেকে ফিরে আবার স্বরুপে ফিরে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৬০ মিনিটে নিকোলাস গাইতানের সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে গোলরক্ষকের পায়ের নিচ দিয়ে জালে বল পাঠিয়ে টুর্নামেন্টে নিজের চতুর্থ গোলটি করেন মেসি। আর এ গোলের মধ্য দিয়ে দেশের হয়ে গাব্রিয়েল বাতিস্তুতার সর্বোচ্চ ৫৪ গোলের রেকর্ডে ভাগ বসালেন মেসি।

ম্যাচের ৭০ মিনিটে বাঁ দিক থেকে আসা ক্রসে লাফিয়ে উঠে চমৎকার হেডে রেমোরোকে ফাঁকি দিয়ে গোল করেন রনদোন। কিন্তু পরের মিনিটেই গোল করে ভেনেজুয়েলাকে আর খেলায় ফিরতে দেয়নি আর্জেন্টিনা। মেসির বাড়ানো বলে গোলরক্ষককে ফাঁকি দেন গাইতানের বদলি হিসেবে নামা এরিক লামেলা। বাকি সময় আর গোল না হলে বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে মেসির আর্জেন্টিনা।

হিউস্টনে বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে প্রথম সেমি-ফাইনালে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখি হবে ২৩ বছর পর বড় কোনো শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে এগিয়ে চলা আর্জেন্টিনা।

আরও দেখুন

fire-east-london

Wanstead Flats grass fire tackled by 200 firefighters

Bangla sanglap desk: More than 225 firefighters are tackling a large grass fire in east …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *