মঙ্গলবার , ১৮ জুন ২০১৯
Home » ব্রিটেনের সংবাদ » ব্রিটেনে এসাইলাম ও অভিভাসন নীতিতে আরো পরিবর্তন আনা হবে : থেরেসা মে
2D22D66D00000578-0-image-a-1_1444129862327

ব্রিটেনে এসাইলাম ও অভিভাসন নীতিতে আরো পরিবর্তন আনা হবে : থেরেসা মে

2D22D66D00000578-0-image-a-1_1444129862327বাংলা সংলাপ ডেস্কঃ এসাইলাম সংস্কার ও অভিভাসন নীতিতে ব্যাপক পরিবর্তন আনা হবে বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ হোম সেক্রেটারী থেরেসা মে। তিনি বলেন, অতি মাত্রায় ইমিগ্রেশন ভাল সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তুলা অসম্ভব। তিনি মঙ্গলবার কনজারবেটিভ পার্টির কনফারেন্সে বলেন, ব্রিটেনে বর্তমান নেট মাইগ্রেশন লেভেল সর্বোচ্চ পর্যায়ে রয়েছে। এখন আর মাইক্রেশনের দরকার নেই। এতে করে অর্থনীতিতে প্রভাব পড়বে।
থেরেসা মে’র বক্তব্যের সাথে এক মত পোষন করেছেন প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামরুন। ব্রিটেনে বর্তমানে নেট মাইগ্রেশন সর্বোচ্চ পর্যায়ের রয়েছে। এ বছরের মার্চ পর্যন্ত ৩৩০,০০০ মাইগ্র্যান্ট এদেশে এসেছে।
তবে ব্রিটেনের বিজনেস গ্রুপ থেরেসা মে’র বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছে। তারা বলেছে, তার বক্তব্য চরম দায়িত্বজ্ঞানহীন।
2D22CEB500000578-0-image-a-2_1444129876592এদিকে থেরেসা মে এসময় বলেন, ইমিগ্র্যান্টদের দক্ষতার ফাঁকগুলি পূরন করতে হবে। এখানে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার বা দক্ষ ইলেট্রিশিয়ানদের আসতে পারবে তিনি মতদেন।
তিনি বলেন, গত এক দশকের অভিজ্ঞতায় আমরা দেখেছি নেট ইমিগ্রেশন দেশের অর্থনীতিতে কতটুকু প্রভাব পেলেছে। সেখানে কোন জাতীয় স্বার্থ ছিলনা।
হোম সেক্রেটারী স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে তার পরিকল্পনার সমালোচকদের উদ্দেশ্যে বলেন, অনেক স্টুডেন্ট আছে যারা তাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও দেশে যায়নি। তিনি বলেন, আমি ইউনিভার্সিটি লবিস্টদের পরোয়া করিনা। আইন সবখানে প্রয়োগ করা হবে।
তিনি এসাইলাম প্রার্থীদের জন্য নতুন পদ্ধতিসহ যারা অন্যান্য নিরাপদ দেশ থেকে ব্রিটেনে চিকিৎসার জন্য আসেন তাদের জন্য কঠোর নীতির প্রতিশ্রুতিদেন।
তিনি জানান আগামী বছর প্রথমবারের মত বার্ষিক এসাইলাম কৌশল প্রকাশ করা হবে। এছাড়া রেজিস্ট্রার্ড সংগঠন বা ব্যক্তি রিফিউজি সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসতে পারবে।

আরও দেখুন

IMG-20190613-WA0005-600x337

জিএসসি নর্থ এর ঈদ পূণর্মিলনী সভা অনুষ্ঠিত

গ্রেটার সিলেট ডেভলাপমেন্ট এন্ড ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল নর্থ এর উদ্দ্যোগে গত ১২.০৬.২০১৯ ইংরেজী রোজ বুধবার যুক্তরাজ্যের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *