বুধবার , ১৮ জুলাই ২০১৮
Home » মুক্ত কলাম » কবিতা
mutakabbir masud

কবিতা

আগুন চুম্বন

মুতাকাব্বির মাসুদ

mutakabbir masud

আমার ইচ্ছেগুলো
জীবন খোঁজে আহ্লাদী সৈকতে
আমার ইচ্ছেগুলো
স্বপ্ব দেখে নীল সত্ত্বার রক্ত পাথরে
আমার ইচ্ছগুলো
ঘুড়ির মতো সূতো ছিড়ে ওড়ে বেড়ায়
আমার ইচ্ছেগুলো
ভেসে বেড়ায় ঘনসবুজের ঠোঁটে
একসময় ইচ্ছেগুলো
হয়ে গেলো ফড়িংচোষা ধানের ডগা

আমার ইচ্ছগুলো
পাল্টে গেলো তোমার বুকে বিবর্ণ ম্লান
আমি একা হাঁটি বনের বিবর্ণ পাতার শিরায়
আমি হেঁটে পৌঁছে গেছি গোরস্তান
বনের রূপালি জোছনায় পিশাচী
হায়েনার ঘর
রক্তনেশায় কুৎসিত নিতম্বে ঢেউ
আমার মাথার উপর
একঘর পিশাচী শকুন
স্বভাবের নিয়মে ডিগবাজি খেলে
উল্লাসী ভঙ্গিতে
আমার ইচ্ছেগুলো
নরকে পোস্টমর্টেম হয়
উদ্ধত সময়ের তামাশায়
ছিন্ন হৃদয় পৌষের পায়রা খোঁজে
দেবদুহিতার ঘরে

ছায়া আমার সাথি হলো
ইচ্ছেগুলো মরে গেলো
ঘনসবুজের ঘরে শিমুলের তলে
পাশবিক উল্লাস আর বারুদের ধোঁয়া
কবর কবর গন্ধ
আমার ইচ্ছেগুলো
রক্তচোষার ঘরে বন্দী
মরণ যন্ত্রণায় কাটায় সময়
বেহায়া সময়ের ঠোঁটে
আমি দেখি জনতার ভীড়ে
ভণ্ড নৃপতি চৌকস গলাবাজি
নিষ্ঠার চেতনায় বিষ্ঠার গন্ধ
নিষিদ্ধ গলির পাশে
লোম ওঠা কুকুরের ঘেউঘেউ শব্দে
আমার ইচ্ছেগুলো
বর্তমান খোঁজে ফিরে
নারকসময়ে কষ্ট লাগেনা
আমার ইচ্ছেগুলো
গতকাল মরে গেলো
কষ্ট লাগেনি
আমার ইচ্ছেগুলো
ভবিষ্যতে ওড়তে পারবে না
ভাবতে কষ্ট লাগে

তপ্তরোদে কিংবা রাতের
ভয়ঙ্কর ঠোঁটে
অন্ধনিশিতে আমার মগজের নিউরনে
অসংখ্য আনবিকশূন্য এসে জড়ো হয়
রক্তউচ্ছ্বাসের বিদীর্ণ হাহাকারে
বসন্তের রঙকরা পাতা
আগুনচুম্বনে হয় বিবস্ত্র
জীবনের রক্তিমঠোঁট অনাবৃত
নীল সমুদ্রের লবণ স্বাদে
ওড়ে যায় আমার ইচ্ছের ঘুড়ি
সূতো ছিড়ে জীবন ছোঁয়ে
নিমেষে অদৃশ্য পথে
আমার ইচ্ছেগুলো
পড়ে থাকে সাদা কফিনের
নিথর ঠোঁটে
অসংখ্য আগুনপিপড়ার
বিষাক্ত হুলে…

নীল জোছনা

মুতাকাব্বির মাসুদ

কোন এক কুমারীভোরে
মা যে আমার পদ্মজলে
পড়েছিল কাদাচুলে
তোমায় খুঁজি শাপলাদলে
.
কোকিল চোখে রক্তবনে
তোমায় বুকে নেবো টেনে
জলশালিকের ওম যেখানে
কেউ জানবেনা মনে মনে
.
সবুজ বনের লাল কমল
তোমার গালের তিল
আমর মায়ের চোখের সাথে
তোমার চোখের মিল
.
আজকে ভাঙবো তোমার সাথে
দীর্ঘ প্রেমের আড়ি
তোমার চোখের চিড়ল পাতায়
তোলবো আমার বাড়ি
.
জোছনা রাতে তোমার সাথে
ঘুরবো চাঁদের গায়
আগুন প্রেমে সিক্ত হবে
নূপুর দেবো পায়
.
তুমি হাসবে জোছনা মেখে
তুমি চাঁদের হাসি
তোমার চোখে জোছনা হাসবে
তুমি মায়ের হাসি
.
চাঁদের নোলক সোনার নাকে
সোনার ঝিলিক কাব্যচোখে
তুমি নদীর ঢেউ
আমার মতো ভালো তোমায়
বাসবেনা আর কেউ
.
আজকে তোমার চোখের তারায়
আমার প্রেমের সুর
নীল জোছনায় সবুজ শাড়ি
কাটবেনা আর ভোর
.
জোছনা বনের কুসুমঠোঁটে
সবুজ শাড়ির ঘর
তোমার বুকে ঢেউ উঠেছে
লাল পলাশের ঝড়
.
গোস্বা করে যাচ্ছো কোথায়
কৃষ্ণনদীর পাড় ?
কৃষ্ণবাঁশি উঠবে গেয়ে
রাধাবনের ধার
.
তোমার জন্যে মরতে পারি
ভাববো কত আর
তোমার হাসি গলায় ফাঁসি
ঝুলবো নদীর পাড়
.
একটু মুখের হাসির জন্য
দিয়ে দেবো প্রাণ
তুমি হাসলে মা হাসে
আর করোনা মান।

ড.মুতাকাব্বির মাসুদ, অধ্যাপক- তাজপুর ডিগ্রী কলেজ,সিলেট

আরও দেখুন

রাজনগরে বন্যার্তদের ত্রাণ সহায়তা প্রদান করছেন ব্যারিস্টার আতাউর রহমানসহ অন্য অতিথিবৃন্দ

সিলেট বিভাগের বিভিন্ন স্থানে জিএসসির ত্রাণ তৎপরতা

বাংলা সংলাপ ডেস্কঃ সিলেট বিভাগের বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করেছে বিট্রেন প্রবাসীদের সবচেয়ে বড় সংগঠন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *