মঙ্গলবার , ২১ জানুয়ারি ২০২০
Home » ব্রিটেনের সংবাদ » পারস্য উপসাগরে বৃটিশ দুই যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন

পারস্য উপসাগরে বৃটিশ দুই যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন

বাংলা সংলাপ ডেস্ক: পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে সৃষ্ট উত্তেজনার প্রেক্ষিতে বৃটিশ পতাকাবাহী তেলের ট্যাংকারকে সুরক্ষা দিতে সেখানে মোতায়েন করা হচ্ছে বৃটিশ দুটি যুদ্ধজাহাজ। এ ছাড়া ওই এলাকায় টমাহক ক্ষেপণাস্ত্র সমৃদ্ধ একটি পারমাণবিক শক্তিচালিত সাবমেরিন মোতায়েন রয়েছে। এমন অবস্থায় মাসটিকে অবকাশ যাপন শেষে আজ রোববার বৃটেনে ফেরার কথা বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের। তিনি এখনও মধ্যপ্রাচ্যে সৃষ্ট উত্তেজনায় মুখ খোলেন নি। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি ও ডেইলি মেইল। এতে বলা হয়েছে, ইরানের শীর্ষ সামরিক নেতা জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার পর পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে ভয়াবহ এক উত্তেজনা বিরাজ করছে। এর প্রেক্ষিতে বৃটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেন ওয়ালেস বলেছেন, কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার প্রতিশোধ নেয়ার হুমকি দিয়েছে ইরান। এ নিয়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

এমন অবস্থায় বৃটেনের জাহাজ ও নাগরিকদের সুরক্ষা দিতে সহায়তা করবে তাদের মোতায়েন করা যুদ্ধজাহাজ। এ দুটি যুদ্ধজাহাজ হলো এইচএমএস মনট্রোজ এবং এইচএমএস ডিফেন্ডার। হরমুজ প্রণালী দিয়ে বৃটিশ পতাকাবাহী জাহাজগুলোকে চলাচলে সহায়তা দেবে এ জাহাজ। জুলাই ও নভেম্বরে বৃটেনের তেলবাহী ট্যাংকার জব্দ করেছিল ইরান। ওই সময়ও বৃটিশ তেলবাহী ট্যাংকার চলাচলে একইভাবে নিরাপত্তা দেয়া হয়েছিল।

এ বিষয়ে শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপারের সঙ্গে কথা বলেছেন বেন ওয়ালেস। এ সময় তিনি সব পক্ষকে উত্তেজনা প্রশমনের আহ্বান জানিয়েছেন। বেন ওয়ালেস বলেছেন, মার্কিনিদের বিরুদ্ধে অত্যাসন্ন হুমকির বিরুদ্ধে নিজেদের আন্তর্জাতিক আইনের অধীনে রক্ষা করতে পারে যুক্তরাষ্ট্র। ওদিকে প্রায় দুই সপ্তাহ অবকাশ যাপন শেষে দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এখনও তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলা অথবা ইরানের পক্ষ থেকে হুমকির বিষয়ে প্রকাশ্যে কোনো কথা বলেন নি। তবে সফর সংক্ষিপ্ত না করায় জনসনের সমালোচনা করেছেন বিরোধী লেবার দলের বিদায়ী নেতা জেরেমি করবিন।

এ সপ্তাহে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে সাক্ষাত করতে ওয়াশিংটন যাওয়ার কথা রয়েছে বৃটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোমিনিক রাব-এর। উল্লেখ্য, কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার ঘটনায় সহায়ক না হওয়ায় ইউরোপীয় মিত্রদের সমালোচনা করেছেন মাইক পম্পেও। পরে অবশ্য তিনি এক টুইটে ইরানের কুদস ফোর্স থেকে আসা অব্যাহত আগ্রাহী হুমকির বিষয়ে মিত্রদের স্বীকৃতিতে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র সফরে যাওয়ার আগে ফরাসি ও জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে ডোমিনিক রাবের।

আরও দেখুন

রাজকীয় দায়িত্ব ত্যাগ ছাড়া উপায় ছিল না-প্রিন্স হ্যারি

বাংলা সংলাপ ডেস্ক: ব্রিটেনের রাজসিংহাসনের দাবিদারদের একজন প্রিন্স হ্যারি জানিয়েছেন, তিনি ‘বিশ্বাসের ওপর ভর’ করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *