বুধবার , ১১ ডিসেম্বর ২০১৯
Home » ব্রিটেনের সংবাদ » দলে ইসলাম-বিদ্বেষের জন্য ক্ষমা চাইলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

দলে ইসলাম-বিদ্বেষের জন্য ক্ষমা চাইলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

বাংলা সংলাপ ডেস্কঃ কনজারভেটিভ পার্টিতে  ইসলাম-বিদ্বেষ থাকায় ক্ষমা চেয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বুধবার নির্বাচনি প্রচারণার সময় তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন দলের অভ্যন্তরে সব ধরণের বিদ্বেষের বিরুদ্ধে স্বাধীন তদন্ত করা হবে।

আগামী ১২ ডিসেম্বরের সাধারণ নির্বাচন ঘিরে প্রচারণায় ব্যস্ত রয়েছে যুক্তরাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলো। এর মধ্যেই ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির বিরুদ্ধে উঠেছে ইসলাম-বিদ্বেষের অভিযোগ। দলীয় পদবী বন্টনের ক্ষেত্রে এই অভিযোগ ওঠায় পূর্ণাঙ্গ স্বাধীন তদন্ত দাবি করেছেনদলটির সাবেক চেয়ার ব্যারোনেস সায়িদা ওয়ারসি।

বুধবার কর্নওয়ালে নির্বাচনি প্রচারণার সময়ে প্রধানমন্ত্রী বরিসের কাছে দলের ইসলাম-বিদ্বেষের জন্য ক্ষমা চাইবেন কিনা তা জানতে চাওয়া হয়। জবাবে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই, যারা আহত হয়েছেন ও আক্রমণ বোধ করেছেন তাদের সবার কাছেই ক্ষমা চাই। আর এগুলো অসহনীয় এবং দেশে গ্রহণযোগ্য না হওয়ায় বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ আর সেকারণেই আমরা তদন্ত করতে যাচ্ছি। ইসলাম-বিদ্বেষ, ইহুদি-বিদ্বেষ ও সব ধরণের বিদ্বেষ ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে স্বাধীন তদন্ত হবে। আর এটা ক্রিসমাসের আগেই শুরু হবে’।

ইসলামবিদ্বেষের জন্য বরিস জনসন ক্ষমা চাইলেও দেশটির বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন জানিয়ে দিয়েছেন, তার বিরুদ্ধে ওঠা ইহুদি বিদ্বেষের জন্য ক্ষমা চাইবেন না তিনি।

মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের অন্যতম ইহুদি নেতা এফ্রাহিম মিরভিস লেবার পাটির অভ্যন্তরে ইহুদি-বিদ্বেষের অভিযোগ এনেছেন। তিনি বলেন এই বিদ্বেষের কারণে ব্রিটিশ ইহুদিদের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ উদ্বেগে রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ওই অভিযোগ তোলার কিছুক্ষণের মধ্যে এক সাক্ষাতকারে জেরেমি করবিন বলেন, তার নেতৃত্বাধীন সরকার সব জনগোষ্ঠীকেই নিপীড়নের হাত থেকে রক্ষা করবে। তবে অভিযোগের বিষয়ে ক্ষমা চাইতে অস্বীকার করেন তিনি।

আরও দেখুন

রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলা: আন্তর্জাতিক আদালতে তথ্য-প্রমাণ নিয়ে বাংলাদেশের দল

বাংলা সংলাপ ডেস্কঃ বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলার শুনানিতে মিয়ানমার যাতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *